তালতলীতে নোথয়অং রাখাইন হত্যা : আড়াই বছরেও মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ, তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন হয়েছে ৮ বার - মঠবাড়িয়ার বার্তা

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Wednesday, January 1, 2020

তালতলীতে নোথয়অং রাখাইন হত্যা : আড়াই বছরেও মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ, তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন হয়েছে ৮ বার


মিজানুর রহমান সুমন, বরগুনা প্রতিনিধি : বরগুনার তালতলীর নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নের নামিশেপাড়া গ্রামের চীর কুমার রাখাইন সম্প্রদায়ের নোথয়অং হত্যা মামলার রহস্য আড়াই বছরেও উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। এ মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন হয়েছে ৮ বার। বুধবার সকালে সাংবাদিকদের কাছে মামলার বাদী নিহত রাখাইন নোথয়অং এর নাতি জামাই মিঃ জোওয়েন এ অভিযোগ করেন।

জানাগেছে, উপজেলার নামিশেপাড়া গ্রামের চীর কুমার নোথয়অং (৭৫) নিজ বাগান বাড়ীতে একাই বসবাস করত। ২০১৭ সালের ২৩ জুন তাকে গলা কেঁটে হত্যা করে ওই বসতঘরের মধ্যে ফেলে রাখে দুর্বৃত্তরা। পরে ২৪ জুন নিহত নোথয়অং এর নাতি জামাই মিঃ জোওয়েন বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরও অজ্ঞাত ১০/১২ জনকে আসামী করে তালতলী থানায় মামলা দায়ের করেন। সে সময় আদালত অধিক তদন্ত করে হত্যা রহস্য উদঘাটন করার জন্য মামলাটি জেলা গোয়েন্দা শাখায় প্রেরণ করেন। কিন্তু গত আড়াই বছরে অতিবাহিত হলেও এ হত্যা রহস্য আজও উদঘাটন করতে পারেনি গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময়ের মধ্যে এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিবর্তন হয়েছে ৮ জন। সম্প্রতি বরগুনা জেলা গোয়েন্দা শাখায় যোগদান করে ৯ম তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন এসআই রিপন কুমার পাল।

মামলার আসামিদের গ্রেফতার পূর্বক বিচারের দাবীতে রাখাইন সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় মানববন্ধন, সংবাদ সম্মেলন ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্বারকলিপি প্রদান করেছেন ভূক্তভোগীরা।

এদিকে হত্যা মামলার বাদী মিঃ জোওয়েন অভিযোগ করেন, এ হত্যা মামলার আসামীরা পুলিশের নাকের ডগায় প্রতিনিয়ত ঘোরাফেরা করলেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছেনা।

এ মামলার ৯ম তদন্তকারী কর্মকর্তা বরগুনা জেলা গোয়েন্দা শাখার এসআই রিপন কুমার পাল মুঠোফোনে জানান, বরগুনা গোয়েন্দা শাখায় যোগদান করে এ মামলার দায়িত্ব পেয়েছি। মামলাটি বর্তমানে তদন্তাধীণ অবস্থায় আছে।


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here