মঠবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৪ : থানায় মামলা - মঠবাড়িয়ার বার্তা

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Friday, May 8, 2020

মঠবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৪ : থানায় মামলা


বার্তা রিপোর্ট : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় ৪ জন আহত হয়েছেন। উপজেলার পূর্ব রাজপাড়া গ্রামে বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতেই শাহ আলম ঘরামী বাদি হয়ে মামুন হাওলাদার (৩০) কে প্রধান আসামী করে ৫ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৫ জনের বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ আজ শুক্রবার ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। শাহ আলম ঘরামী ওই গ্রামের মৃত. আঃ রশিদ ঘরামীর ছেলে।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শাহ আলম ঘরামী সাথে প্রতিবেশী মৃত. সিরাজ উদ্দিন খন্দকারের ছেলে নূরুল ইসলামের দীর্ঘ দিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। বিষয়টি সম্প্রতি উপজেলা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সমন্বয় স্থায়ী মিমাংসা হয়। শালিসদারগণ পাকা পিলার বসিয়ে সীমানাও নির্ধারণ করে দেন। শাহ আলম ঘরামী তার সীমানায় বৃহস্পতিবার সকালে একটি দোকান ঘর নির্মাাণ করতে গেলে নূরুল ইসলাম ও তার ভাড়াটিয়া বাহিনী মামুন হাওলাদারের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দোকান তুলতে বাঁধা দিয়ে অশ্লীল ভাষায় গাল-মন্দ শুরু করে। এক পর্যায় দোকান ঘর ভেঙ্গে ফেলাসহ শাহ আলম ঘরামীকে মারতে উদ্যত হলে সে দৌড়ে বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। সেখানে গিয়ে ওই সন্ত্রাসী গ্রæপ হামলা চালিয়ে শাহ আলম ঘরামীসহ চারজনকে আহত করে। পরে  স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো.মনির আকন ও দফাদার (গ্রামপুলিশ) হাবিব হাওলাদার জানান, সালাম হাওলাদারের ছেলে মামুন মাদক মামলাসহ একাধিক মামলার আসামী। বেশ কয়েকবার গ্রেপ্তারও হয়েছে। সে তার বাড়িতে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের নিয়ে মাদকসহ বিভিন্ন অপকর্মের আড্ডা বসায়। স্থানীয় ইউপি সদস্য মো.মনির আকনসহ স্থানীয়রা আরও জানান, মামুনের ভাই মিরাজ নিজের মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করে আহত সেজে হাসপাতালে ভর্তি হয়। এবং শাহ আলম গংদের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা দেয়।

এব্যপারে জানতে সরেজমিনে গিয়েও নূরুল ইসলাম ও মামুন হাওলাদারকে পাওয়া যায়নি। যে কারনে তাদের বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার উপ-পরিদর্শক মো. গোলাম মাওলা পৃথক মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here