মঠবাড়িয়ায় এডিপির টেন্ডারে অনিয়মের অভিযোগ : প্রকৌশলীর অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন - মঠবাড়িয়ার বার্তা

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Friday, June 26, 2020

মঠবাড়িয়ায় এডিপির টেন্ডারে অনিয়মের অভিযোগ : প্রকৌশলীর অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন


বার্তা রিপোর্ট: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার এডিপির ১২ প্যাকেজ‘র প্রায় ৬১ লাখ টাকা টেন্ডারে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ এনে সাধারণ ঠিকাদারেরা উপজেলা প্রকৌশলীর অপসারণ দাবীতে বিক্ষোভ করেছে। তারা টেন্ডার বাতিলের দাবিতে শুক্রবার দুপুরে মঠবাড়িয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সম্মূখ সড়কে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। এর আগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দেয়াসহ সংবাদ সম্মেলন করেন।

ঘন্টা ব্যপী এ মানববন্ধনে টেন্ডার বাতিলের দাবি ও পুণঃ টেন্ডার দেয়ার আহŸবান জানিয়ে এবং প্রকৌশলীর অপসারনের দাবি করে বক্তব্য রাখেন, ঠিকাদার ও সাবেক কাউন্সিলন মো. হেমায়েত উদ্দিন, সাবেক কাউন্সিলন মো. জিল্লুর রহমান, খাইরুল ইসলাম কামাল, কামরুল আকন, তৌহিদ মাসুম, নজরুল ইসলাম সোহেল প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, উপজেলা প্রকৌশলী গত ১৮ জুন নোটিশে সহি করলেও ২১ ও ২২ জুন মাত্র দু‘ঘন্টা করে সিডিউল বিক্রি করেন। প্রতিটি সেটের মূল্য ৭‘শ টাকা বেশী নিয়ে ৫% কমিশন হিসেবে ফরম পূরণ করার পরামর্শ দেন। পরবর্তিতে অফিস কর্তপক্ষ আরএফকিউ নোটিশ দিয়ে উল্লেখ করেন শুধুমাত্র উপজেলাধীন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের তালিকাভুক্ত ঠিকাদারগণ দরপত্রে অংশগ্রহণ করতে পারবে। যাহা সম্পূর্ণ আইন বিরোধী। আরএফকিউ পদ্ধতিতে শতাধিক ফরম বিক্রিও বে-আইনী। আরএফকিউ  পদ্ধতিতে সকল ঠিকাদারদের সম্মূখে দরপত্র খোলার কথা থাকলেও অফিস কর্তৃপক্ষ গেট বন্ধ করে রহস্য জনক কারনে পছন্দমত কতিপয় ঠিকাদারদের বাঁছাই করে ২২% থেকে ২৭% কমিশন দিয়ে পাইয়ে দেন। দরপত্রে ১০ দিনের সময় উল্লেখ থাকলেও কতিপয় ঠিকাদারের স্বার্থ সিদ্ধির জন্য ৩ দিনের মধ্যে তাড়াহুরা করে সমাপ্ত করে।

এব্যপারে উপজেলা প্রকৌশলী কাজী আবু সাঈদ মোঃ জসীম এর মুঠো ফোনে একাধিকবার কল করলেও তিনি কল রিসিভড করেনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক বলেন,তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।



No comments:

Post a Comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here